উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি – BNFE Job Circular 2020

উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো হল বাংলাদেশ সরকারের একটি ব্যুরো। এটি যে সকল ব্যক্তি আনুষ্ঠানিক শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে নাই, সেই সব ব্যক্তিদের জন্য কাজ, শিক্ষা ও সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য দায়ী। সম্প্রতি উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। আগ্রহী ও যোগ্য ব্যক্তিদের আবেদন করার আহব্বান করা হচ্ছে।

১।পদের নাম: ব্যক্তিগত সহকারী
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হইতে অন্যূন ম্নাতক ডিগ্রী
বয়স: ৩০ বছর।
বেতন স্কেল: ১০,২০০-২৪,৬৮০ টাকা।

২।পদের নাম: সহকারী হিসাবরক্ষক
পদ সংখ্যা: ০২ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হইতে বাণিজ্য বিভাগে অন্যূন দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ-তে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি; বয়স: ৩০ বছর।
বেতন স্কেল: ১০,২০০-২৪,৬৮০ টাকা।

৩।পদের নাম: ক্যাশিয়ার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হইতে বাণিজ্য বিভাগে অন্যূন দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ-তে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বয়স: ৩০ বছর।
বেতন স্কেল: ১০,২০০-২৪,৬৮০ টাকা।

সরকারি বেসরকারি সব ধরনের চাকরির খবর সবার আগে পাবেন এই ওয়েবসাইটে www.goodjobbd.com। তাই যেকোনো ধরনের চাকরির খবর পেতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইটে । উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র জব সার্কুলার সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য দেখতে নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন -বিস্তারিত তথ্য দেখুন নিচের ছবিতে।

উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০

41c6mef

আবেদন শেষ তারিখ: ২০ ডিসেম্বর ২০২০

আবেদন নিয়ম: আবেদনপত্র আগামী ২০ ডিসেম্বর, ২০২০ তারিখের মধ্যে “মহাপরিচালক, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরাে, ২৩২/১ তেজগাঁও শি/এ, ঢাকা-১২০৮” এ ঠিকানায় পৌছাতে হবে। খামের উপর পদের নাম, নিজ জেলার নাম উল্লেখ করতে হবে।

BNFE Job Circular 2020

রূপকল্প (Vision):

নিরক্ষরতা মুক্ত বাংলাদেশ

 অভিলক্ষ্য (Mission)

নিরক্ষর জনগোষ্ঠীকে সাক্ষরজ্ঞান দানের মাধ্যমে জীবনব্যাপী শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি করা।

কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ (Strategic Objectives)

দপ্তর/সংস্থার কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ

১. বিদ্যালয় বহির্ভূত শিশুদের জন্য উপানুষ্ঠানিক প্রাথমিক শিক্ষার সুযোগ অবারিতকরণ (৪র্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির আওতাধীন)

২. মুজিব বর্ষের বিশেষ কর্মসূচি: সাক্ষরতার হার বৃদ্ধি এবং অব্যাহত ও জীবনব্যাপী শিক্ষার সুযোগ অবারিতকরণ [ মৌলিক সাক্ষরতা প্রকল্প (৬৪ জেলা) এর আওতাধীন ]

৩. উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা সম্প্রসারণ ও নিশ্চিতকরণ

আবশ্যিক কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ

১. কর্মসম্পাদনে গতিশীলতা আনয়ন ও সেবার মান বৃদ্ধি

২. দাপ্তরিক কর্মকান্ডে স্বচ্ছতা বৃদ্ধি ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণ

৩. আর্থিক ও সম্পদ ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.